• Breaking News

    ইকামত, ইকামতের জবাব, ইকামতে ক্বাদ ক্বামাতিছ সালাহ, এর জবাবে আকামাল্লাহু ওয়া আদমাহা বলা,

    ইক্বামতে ‘ক্বাদ ক্বা-মাতিছ ছালাহ’-এর জবাবে ‘আক্বা-মাহাল্লাহু ওয়া আদামাহা’ বলা :
    ‘ক্বাদক্বা-মাতিছ ছালাহর’ জবাবে ‘আক্বা-মাহাল্লাহু ওয়া আদা-মাহা’ বলার কোন ছহীহ হাদীছ নেই। বরং উত্তরে ‘ক্বাদ ক্বা-মাতিছ ছালাহ’-ই বলতে হবে। উক্ত বাক্যের পক্ষে যে হাদীছটি বর্ণিত হয়েছে, তার সনদ যঈফ।
    عَنْ أَبِىْ أُمَامَةَ أَوْ عَنْ بَعْضِ أَصْحَابِ النَّبِيِّ  أَنَّ بِلَالًا أَخَذَ فِي الْإِقَامَةِ فَلَمَّا أَنْ قَالَ قَدْ قَامَتِ الصَّلَاةُ قَالَ النَّبِيُّ   أَقَامَهَا اللهُ وَأَدَامَهَا.
    আবু উমামা কিংবা রাসূল (ছাঃ)-এর কোন এক ছাহাবী বর্ণনা করেন, বেলাল (রাঃ) যখন ইক্বামতে ‘ক্বাদ ক্বা-মাতিছ ছালাহ’ বলেন, তখন রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘আক্বা-মাহাল্ল­াহু ওয়া আদা-মাহা’।[1]
    তাহক্বীক্ব : উক্ত বর্ণনার সনদে মুহাম্মাদ ইবনু ছাবেত আল-আবদী ও শাহর ইবনু হাওশাব এবং তাদের দুইজনের মাঝখানে আরেকজন রাবী আছে অপরিচিত। ইমাম বায়হাক্বী, ইবনু হাজার আসক্বালানী, শায়খ আলবানীসহ প্রমুখ মুহাদ্দিছ উক্ত হাদীছকে একেবারেই দুর্বল বলেছেন।[2]
    [1]. আবুদাঊদ হা/৫২৮, ১/৭৮ পৃঃ, ‘ছালাত’ অধ্যায়, ‘যে ইক্বামত শুনবে সে কী বলবে’ অনুচ্ছেদ; ইবনুস সুন্নী, আমালুল ইয়াওমি ওয়াল লায়লাহ হা/২১; বায়হাক্বী ১/৪১১; মিশকাত হা/৬৭০, পৃঃ ৬৬। [2]. ইরওয়াউল গালীল হা/২৪১, ১ম খন্ড, পৃঃ ২৫৮; যঈফ আবুদাঊদ হা/৫২৮।


    No comments