• Breaking News

    সৌদিতে হাদীছ সংরক্ষনের পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে,

    #হাদীসের_অনুসারীদের_জন্য_আনন্দের সংবাদঃ
    সৌদি আরবের মদিনায় বাদশাহ সালমানের নামে নবী (সা.)-এর হাদীছ সংরক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। মঙ্গলবার এক রাজকীয় সমনে বাদশাহ এ ঘোষণা দেন। ‘কিং সালমান কমপ্লেক্স’-এ হাদীছ বিষয়ে বিশ্বখ্যাত পন্ডিত ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে একটি পরিষদ গঠন করা হবে। রাজকীয় সমনের মাধ্যমেই প্রেসিডেন্ট ও সদস্যদের নিয়োগ দেয়া হবে বলে জানা গেছে।
    আজ থেকে প্রায় ১৩০০ বছর আগে খলীফা ওমর বিন আব্দুল আযীয হাদীছ সংগ্রহের রাজকীয় ফরমান জারী করেছিলেন। আজ প্রায় ১৩০০ বছর পর সউদী বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আযীয হাদীছ গবেষণা ও প্রচার-প্রসারের জন্য একটি স্বাধীন প্রতিষ্ঠান গঠনের রাজকীয় ফরমান জারী করেছেন। তার এই ফরমানটি কয়েকটি কারণে ঐতিহাসিক ও গুরুত্বপূর্ণ।
    ১. বহুদিন যাবত বাদশাহ ফাহাদ কুরআন কমপ্লেক্স এর মাধ্যমে সারা দুনিয়ার বিভিন্ন ভাষায় পবিত্র কুরআনের অনুবাদ ও তাফসীর ফ্রি বিতরণ করা হয়েছে। যেমন আমাদের বাংলা ভাষায় শায়খ আবু বকর যাকারিয়ার তাফসীর সহ বাংলা অনুবাদ ফ্রি বিতরণ করা হয়। তেমনি পৃথিবীর অজানা অচেনা মুসলিম সংখ্যা লঘু এরিয়াতে তাদের ভাষায় অনুবাদ করা কুরআনের লক্ষ লক্ষ কপি বিতরণ করা হয়েছে। কিন্তু অদ্যবধি হাদীছের জন্য আলাদা কোন খিদমাত হয়নি। যা ইনশাআল্লাহ এই কমপ্লেক্সটির মাধ্যমে পূরণ হবে আশা করা যায়।
    ২. বাদশাহ ফাহাদ কুরআন কমপ্লেক্স-এর মত বাদশাহ সালমান হাদীছ কমপ্লেক্সটির কেন্দ্রও মদীনাতে করার ঘোষণা দিয়েছেন বাদশাহ সালমান। যা কমপ্লেক্সটির জন্য সত্যিই উপযুক্ত কেন্দ্র। এছাড়া মদীনা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাদীছ বিভাগের ছাত্র-শিক্ষক ও মদীনার মুহাদ্দিছগণের জন্য খবরটি অনেক খুশীর ও গুরুত্ববহ।
    ৩. কমপ্লেক্সের গবেষণা বিভাগটি গঠন করা হবে সারা বিশ্বের প্রথিতযশা মহান মুহাদ্দিছদের সমন্বয়ে। যা কমপ্লেক্সটির গ্রহণযোগ্যতাকে মুসলিম বিশ্বে বাড়িয়ে তুলবে।
    ইতিমধ্যে শায়খ আব্দুল ওহাব নাজদী (রহঃ)-এর বংশধর মুহাম্মাদ বিন হাসান আলে শায়খকে কমপ্লেক্সটির প্রধান হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছে।
    সালমানের এ ঘোষণায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে। সৌদি আরবের অনেকে মনে করছেন হাদীছ সংরক্ষণ ও গবেষণায় এ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা একটি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

    কোন মন্তব্য নেই